1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. starnt1991@gmail.com : Shawkat :
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন

ঈদ উৎসবের আগমনী বার্তায় ইউএনও এর উপহার পৌঁছালো সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের হাতে

সৈকত
  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১
  • ২১ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার পৌর শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ার ছড়াস্থ শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে আশ্রয় পাওয়া সমাজের এক সময়কার সুবিধাবঞ্চিত-বিপন্ন-ঝুঁকিতে থাকা-পথ শিশুদের নিয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঈদ উৎসবের পোশাক ও উপহার সামগ্রী বিতরণ, ধর্মীয় শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মুজিববর্ষে সমাজের একেবারেই পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর একটি অংশ হিসেবে সুবিধাবঞ্চিত দুইশত শিশুর জন্য আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উৎসবের আনন্দকে মহিমান্বিত করতে এই উদ্যোগ গ্রহণ করে কক্সবাজার সদর উপজেলা প্রশাসন। গতকাল সোমবার (১০মে ২৮ রমজান) বাদ আসর বালক শাখার কেন্দ্র মিলনায়তনে সীমিত পরিসরে উৎসবমুখর পরিবেশে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের কেন্দ্র ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং কক্সবাজার সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুরাইয়া আক্তার সুইটি।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) নু এমং মারমা মং এবং কক্সবাজার সবুজবাগ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ ইকবাল হোসাইন।কেন্দ্রের উপপ্রকল্প পরিচালক জেসমিন আকতার এর স্বাগত বক্তব্যে এবং লাইফস্কিল ট্রেইনার কাম জব প্লেসমেন্ট অফিসার ক্যনু মং মারমা এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক মোঃ ফরিদুল আলম।

আয়োজনের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করে কেন্দ্রের বালক নিবাসী শিশু মোঃ পারভেজ মোশারফ। এছাড়াও কেন্দ্রের বালিকা নিবাসী শিশু তৈয়বা আক্তার এর সুমধুর কন্ঠে ধ্বনিত হয় একটি ইসলামী সংগীত। এরপরেই পবিত্র মাহে রমজান মাসের গুরুত্ব এবং আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের মাহাত্ম্য ও চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনাকালীন সময়ে করণীয় সম্পর্কে আলোচনা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিসহ বক্তাবৃন্দ।

অতঃপর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কেন্দ্রের কোমলমতি শিশুদের মাঝে ঈদুল ফিতর উৎসবের উপহার হিসেবে নতুন পোশাক উপহার দেন।

এরপর কেন্দ্রের উপপ্রকল্প পরিচালক জেসমিন আকতার তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে কেন্দ্রের শিশুদের মাঝে ধর্মীয় শিক্ষা সহায়ক উপকরণ হিসেবে কুরআন শরীফ, জায়নামাজ, তসবিহ, হিজাব ও টুপি উপহার দেন। এছাড়াও কেন্দ্রের পক্ষ থেকে শিশুদের মাঝে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রসাধনী সামগ্রী, মেহেদী ও আতর বিতরণ করেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শেষভাগে বৈশ্বিক মহামারী করোনার করাল গ্রাস থেকে মুক্তি লাভের জন্য মহান আল্লাহর করুণা লাভের প্রত্যাশায় মাওলানা মোঃ ইকবাল হোসাইন এর পরিচালনায় দোয়া মাহফিল ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। অতঃপর কেন্দ্রের শিশুদের নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে স্বাস্থ্যবিধি মেনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বাহারী আইটেমে কেন্দ্রের নিজস্ব হেঁসেলে তৈরিকৃত মজাদার মেন্যুর সমাহারে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি শিশুদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে সমাজে সামনের সারির মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠার আহ্বান জানান।

কেন্দ্রের উপপ্রকল্প পরিচালক জেসমিন আকতার বলেন- মূলত বৈশ্বিক মহামারীর সংকটময় পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরের মধ্যে আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে কেন্দ্রে আশ্রয় পাওয়া সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মুখে হাসি ফোঁটানোর জন্য উপজেলা প্রশাসনের এমন মানবিক প্রয়াসে আমরা কৃতজ্ঞ। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য- সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়াধীন সমাজসেবা অধিদফতর পরিচালিত কক্সবাজার শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্র সমাজের ঝুঁকিতে থাকা, বিপন্ন, পথ শিশুদের মূল স্রোতধারায? ফিরিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন